• বুধবার, ১৭ অগাস্ট ২০২২, ০১:৫৫ পূর্বাহ্ন

শীতকাল আসার সাথে সাথে শীতের তাপমাত্রা কমার সঙ্গে সঙ্গে বাতাসের আর্দ্রতা কমে যায়

নিজস্ব প্রতিবেদক / ২৯৮ বার দেখা হয়েছে
প্রকাশ : রবিবার, ১৬ জানুয়ারী, ২০২২

শীতকাল আসার সাথে সাথে শীতের তাপমাত্রা কমার সঙ্গে সঙ্গে বাতাসের আর্দ্রতা কমে যায়।
এবং শুরু হয় শুষ্কতা।

এতে শ্বাসনালীর স্বাভাবিক কার্যক্রম বিনষ্ট হয়.
এছাড়া পরিবেশের ধুলাবালি পরিমাণ এত পরিমান বাড়তে থাকে ,যে শীতকালে কোন বৃষ্টিপাত না..
শীতকাল আসার সাথে সাথে মানুষের শরীরে নাকে মুখে সারা অঙ্গে সংমিশ্রিত হয়ে যায় ধুলাবালির।.
সবমিলিয়ে সৃষ্টি হয় নানা রকম সমস্যা।
মূলত শ্বাসকষ্টের ওষুধ বেশি দেখা যায়।

ঠান্ডা বাতাসের কারণে মানুষ নানা রকম অসুখ এ পরে যায়.

 

শীতে অদ্রো তাপমাত্রার কারণে মানুষের শ্বাসকষ্টের সবচেয়ে বেশি সমস্যা দেখা

দেয়।
এ সময় শুষ্ক বাতাসে হাঁপানি রোগীদের শ্বাসনালীতে এবং সংবেদনশীল সৃষ্টি হয়.
ফলে হাঁপানির জন্য শ্বাসকষ্ট রোগীদের হাঁপানি অর্থ বেড়ে যায়।
এবং তাদের কাছে রয়েছে তাদের কাজের পরিমাণ বেড়ে যায়।
শিশু-বৃদ্ধ যারা ধূমপান করে.
তাদের ক্ষেত্রে দুর্ভাগ্যের ,

কেননা এ সময় তাদের সবচেয়ে বেশি সমস্যা হয়ে থাকে।
আবার এ মৌসুমে ভাইরাস রয়েছে
যেমন সর্দি-কাশি, ইনফুলেনজা ইত্যাদি
এ সবচেয়ে বেশি দেখা যায়।
শীতের সময় টনসিল বেড়ে যায়।
নিউমোনিয়ার আক্রমণের সময় হয় এসময়।
বাতের ব্যাথার সবচেয়ে বেশি দেখা দিতে পারে।
শুধু বয়স্কদের সমস্যা হয় এই সময়।
অনেকের ত্বক শুষ্ক হয় ফেটে যায়।

 

 

শরীরের চামড়া এতে চর্মরোগ দেখা যায়।তবে শীতের এই সমস্যা থেকে বাঁচার জন্য বেশ কিছু শর্তাবলী মেনে চললে শীতের কষ্ট থেকে বাচা যায় সেগুলো নিয়মিত অনুশীলন করলে আর শীতকালে সমস্যা গুলোর সম্মুখীন হবে না তবে প্রথমে যে সব বিষয়গুলো সতর্ক থাকতে হবে রোগীদের ক্ষেত্রে সেসব বিষয় গুলো হলো সবসময় শীতের ওষুধ রাখতে হবে যাদের ত্বকের সমস্যা রয়েছে তাদের ক্ষেত্রে পেট্রোলিয়াম জেলি বা গ্লিসারিন ব্যবহার করতে হবে যাদের শীতের সময় স্কিনের সমস্যা হয় তাদের ডাক্তারের সাথে পরামর্শ করতে হবে যাদের হার্টের সমস্যা তাদের এই শীতের সময় হার্ট বিশেষজ্ঞ সাথে কথা বলতে হবে যাদের বাতের ব্যাথা রয়েছে তাদের যা হাড়ের জোড়া বাসন্তী কে সচল রাখতে ঘরের ভিতরে চলাফেরা করতে হবে এবং প্রয়োজনে গরম গরম সেঁক দিতে হবে এসব নিয়ম বিধি বিধান গুলো মেনে চললে আপনার শীতের সময় সমস্যা থেকে সমাধান করতে পারবেন।

 

Bangladesh’s miserable phase in T20 is due to less match play.

 


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন